কৌতুক রস-১

(1) স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রচন্ড ঝগড়া হচ্ছে।এক সময় তারা সিদ্ধান্ত নিল তারা পরস্পরকে ডিভোর্স দিবে।কিন্তু একটা সমস্যা তৈরি হলো। তাদের একটা ছেলে ছিল।বউ বলে ছেলে আমার।স্বামী বলে ছেলে আমার। শেষ পর্যন্ত বিষয়টা কোর্ট পর্যন্ত গড়াল। / / / / স্বামীঃছেলে আমার।আমার জন্য ছেলেটা পৃথিবীর মুখ দেখেছে। স্ত্রীঃবাহ্।গ্লাস আমার,পানি আমার,চিনি আমার দুই ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে পুরো শরবত তোমার!!!!!

(2) একদিন রাতের বেলা মন্টু আর ছেন্টু
মিলে অনেকগুলো আম চুরি করছে,
কিন্তু এতগুলা কোথায় ভাগাভাগি
করবে বুঝতে পারতেছিলনা।
সামনেই একটা কবরস্থান ছিল।
তারা দেওয়াল টপকে কবরস্থানের
ভিতর ঢুকে পড়লো। কিন্তু দেওয়াল
পার হওয়ার সময় দুইটা আম ঝাঁকি খেয়ে
পড়ে গেলো, তারা সেটা তোলার
সময় পেলোনা।
তো এক মাতাল সেই রাস্তা দিয়া
যাইতেছিল, কবরস্থানের পাশ দিয়ে
যাওয়ার সময় শুনতেছে… একটা তোর,
একটা আমার, একটা তোর, একটা আমার।
এই শুনে মাতাল দ্রুত হাঁটা দিল।
সামনেই এক পুলিশের দেখা পেয়ে
বলতেসে, “ভাই, কবরস্থানে ভূত আছে।
লাশ ভাগাভাগি করতাসে। আরেকটু
হইলে আমারেও খাইসিলো। অনেক
কষ্টে বাঁইচা আসছি।”
পুলিশ বলতেসে, “চলেন দেখি কোথায়
আপনার ভূত?”
দুইজনেই কবরস্থানের কাছে পৌছে
শুনতেছে… একটা তোর, একটা আমার,
একটা তোর, একটা আমার…
পুলিশ তো ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে
গেসে।
হঠাৎ মন্টু বলে উঠলো, “তাইলে
দেওয়ালের ওই পাশের দুইডারে কি
করবি?”
এই কথা শুইনা পুলিশ ও মাতাল ওখানেই
অজ্ঞান হইয়া পড়ল।